ভারতকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত পাকিস্তান

এশিয়া কাপ ক্রিকেটের পরবর্তী আসরের স্বাগতিক দেশ পাকিস্তান। নিজেদের দেশে পুরোদমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর লক্ষ্যে এশিয়া কাপকে বড় একটি পদক্ষেপ হিসেবে নিচ্ছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। তবে পাকিস্তানের সকল পরিকল্পনা ভেস্তে যেতে পারে ভারতের কারণে।

কেননা রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে দুই দেশের মধ্যকার সবধরনের সম্পর্কই প্রায় ছিন্ন বলা চলে। যার মধ্যে রয়েছে ক্রিকেটও। ২০০৯ সালে লাহোর শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর এটি বেড়ে গিয়েছে আরও। সবশেষে ২০০৭ সালে পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ভারত। এরপর সে দেশে যায়নি ভারতের কোনো দল।

একই সম্ভাবনা রয়েছে এশিয়া কাপের পরবর্তী আসরকে ঘিরেও। কেননা পাকিস্তানে গিয়ে ভারতের এশিয়া কাপে অংশ নেয়ার কথা চিন্তা করা অলিক কল্পনাই বলা চলে। এদিকে গতবছর দুবাইতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন দল ভারত। ফলে তাদেরকে বাইরে রেখে টুর্নামেন্ট আয়োজনের ব্যাপারে সায় দেবে না এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলও (এসিসি)।

ফলে সমস্যার মধ্যেই পড়েছে পাকিস্তান। আগামী বছরের সেপ্টেম্বরে কুড়ি ওভারের ফরম্যাটের টুর্নামেন্টটি নিজেদের ঘরের মাঠেই আয়োজন করতে চায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সে জন্য ভারতীয় ক্রিকেট দলকেও পাকিস্তানে দেখতে চায় বোর্ড। এমনকি ভারতকে স্বাগত জানানোর জন্য পাকিস্তান যেকোনো সময় প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছেন পিসিবি প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান।

তবে ভারতকে পাওয়ার জন্য আগামী বছরের জুন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারবে পাকিস্তান। কেননা এর মধ্যেই তাদের নিশ্চিত হতে হবে টুর্নামেন্টটি কোথায় অনুষ্ঠিত হবে। ওয়াসিম খান বলেন, ‘আমাদের এখন ভারতীয় দলের সম্মতি প্রয়োজন। আগামী বছরের সেপ্টেম্বর আসতে এখনও অনেক সময় বাকি। তবে জুনের মধ্যেই আমাদের জানতে হবে টুর্নামেন্টটি কোথায় আয়োজিত হবে। তবে এ সিদ্ধান্তটি এখন এসিসি ও আইসিসিকে নিতে হবে। আমরা এশিয়া কাপে ভারতকে স্বাগত জানানোর জন্য প্রস্তুত।’

পিসিবির প্রধান নির্বাহী আরও জানান দুই দেশের বোর্ডের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু রাজনৈতিক কারণে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করা সম্ভব হয় না। তবে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে হলেও খুব শীঘ্রই ভারতের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলার ব্যাপারে আশাবাদী ওয়াসিম খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *